ড. কামালের উপর হামলা, যা বলল ইসি সচিব

ভোটের মাঠে অন্যতম প্রথান রাজনৈতিক জোটের নেতা ড. কামাল হোসেন এর ওপর হামলার বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশন সচিব মো. হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, এ বিষয়টি আমরা আবগত নই। কেউ লিখিত ভাবে কোন অভিযোগ করেননি।

এছাড়া অন্যান্য অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত বিএনপির পক্ষ থেকে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে তার বেশরভাগরেই সত্যতা পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে আগারগাওস্থ নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে ব্রিফিংকালে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির অভিযোগের সঙ্গে বাস্তবতার কোন মিল পাওয়া যাচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, যদি কোন পেন্ডিং ওয়ারেন্ট থাকে এবং আদালতের কোন তাগিদ থাকে তা তামিল করতে হবে। কমিশনারগন ইতিমধ্যে এ ধরনের নির্দেশনা দিয়েছেন। দেখা গেছে, যাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে তাদের অনেকের বিরুদ্ধেই আগে থেকে অভিযোগ ছিল। যারা এতোদিন আত্মগোপনে ছিলেন, এখন ভোটের মাঠে প্রকাশ্যে চলে এসছে পুলিশ তাদের ধরছে বা ধরার চেষ্টা করছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ও নির্বাচনের অংশগ্রহণকারীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে কি ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এগুলো তদন্ত করে দেখছি। তদন্ত প্রতিবেদনে দেখা যাচ্ছে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে অভিযোগগুলোর সত্যতা নেই।

এছাড়া যে অভিযোগগুলোর সতত্যা পাওয়া গেছে, সেগুলো অধিকতর তদন্তের মাধ্যমে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট রির্টাংনিং অফিসারদের অভিযোগ গুলোর বিষয়ে খোজ নিতে বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার যে সভা হয়েছিল সেখানে মাননীয় কমিশনারগণ পুলিশর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের অত্যান্ত কড়া ভাষয়া বলেছেন, অহেতুক যেন কাউকে হয়রানী করা না হয় এবং বিনা ওয়ারেন্টে যেন কাউকে গ্রেফকার করা না হয়।

তিনি বলেন, ৩০০টি আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রায়১৮৪৬ জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। তার সঙ্গে আরোও অনেক লোক প্রচারে অংশগ্রহণ করছে। বিপুল জনগোষ্ঠির এ দেশে এ ধরনের একটি বা দুটি ঘটনা ঘটতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*